Pubg vs free fire | পাবজি vs ফ্রি ফায়ার

Pubg vs free fire | পাবজি vs ফ্রি ফায়ার

pubg vs free fire, free fire, pubg, ফ্রি ফায়ার, পাবজি,
বর্তমানে pubg এবং free fire নিয়ে বাংলাদেশে এক ধরনের যুদ্ধ শুরু হয়েছে। ভাইরে আপনাদের কথা কি বলব ছোট ভাইয়ের জন্য রাতে ঘুমাতে পারি না। গেম খেল্লে মানুষের এত্ত কথা বলতে হয়? রাত ৩ টার সময় চিল্লায় আর বলে ভাই এইখানে আসেন ওইখানে যান বাচান, লেভেল ১ এর ব্যাক লাগবে?  বন্ধুক লাগবে? ভাইরে ভাই গিয়া ধমক দেই ৫ মিনিট চুপ তারপর আবার শুরু। কি রে ভাই তোরা নিজেরা খেলছ খেল বাসার সবার উপর নির্যাতন কেন করস? ইদানিং ফেসবুকে ঢুকলে দেখা যায় পাবজি সাপোর্টাররা ফ্রি ফায়ারের বাশ দিচ্ছে নয়তো ফ্রি ফায়ার পাবজিকে বাশ দিচ্ছে। ভাই আপনারা এত সময় কই পান? আপনার কি কাজ কাম নাই? একবার ভেবে দেখুন তো আপনি যে হারে গেমস খেলেন আর ফেসবুকে এসে এই গেমস নিয়ে লাফান তাতে আপনার কোন লাভ হচ্ছে কিনা? আবার শুনা যাচ্ছে ভারতে বাবার ব্যাংকের ১৬ লাখ টাকা নষ্ট করেছে ছেলে গেমস খেলে।


আপনাদের দেখে দেখে গরিব ঘরের ছেলে গেমস খেলার জন্য বাবা মায়ের কাছে মোবাইল চাইলে না দেয়ায় সুইসাইড করে। ভাই মাথায় রাখা উচিত যে এটি একটি গেমস এটি আপনার কোন ভাবে উপকারে আসছে না বরং ক্ষতি করছে। আপনারা এভাবে লরাই করে যাচ্ছেন আর গেমস কম্পানি গুলো লাখ লাখ টাকা কামিয়ে যাচ্ছে প্রতিনিয়ত। ভাবুন তো আপনি সারাদিনে গেমস খেলে যে সময় নষ্ট করছেন সে সময়গুলো ভাল কাজে লাগালে আপনার কত উপকারে আসত? এই গেমস কম্পানি আমাদের না যে আমরা যুদ্ধ লাগলে আমাদের কোন লাভ হবে।  তাই আপনারা আপনাদের যায়গা থেকে এটা ভাবুন এটি একটি গেমস আর যার যেটি ভাল লাগে সে সেটি খেলবে সবার পছন্দ এক না।
Pubg vs free fire, free royal pas, free bc, free diamond,

আপনার কাছে যেটি সোনার হরিন অন্য কারো কাছে সেটি চোখের বিশ। তাই ফ্রি সময় গেমস খেলেন কিন্তু গেমসকে নেশায় পরিনত করতে দিবেন না। মনে রাখবেন এটি যারা বানিয়েছে তারা লাখ লাখ টাকা কামাচ্ছে ঠিকই কিন্তু আপনার কোন দিক থেকে উপকার হচ্ছে না।  আপনি ইউটিউবে যাদের ভিডিও দেখে লাফাচ্ছেন তারাও প্রতি মাসে ভাল পরিমানে ইনকাম করছে ভিডিও বানিয়ে আর আপনি হুদাই লাফাচ্ছেন।

আজ থেকে প্রায় ৪-৫ বছর আগে যখন ক্লাস অফ ক্লান্স খেলতাম তখন মনে হত গেমসই সন এটি ছারার কোন মানেই হয় না। খেতে বসলে গেমস শুইতে গেমস বসতে গেমস এমন কি বাথরুমেও কারন বের হলেই এটাক সব লুট করে নিয়ে যাবে। দীর্ঘদিন খেলার পর কোন রকম বাত দিলাম এস এস সি তে রেজাল্টও তেমন ভাল হয়নি। কিভাবে হবে পরতামই তো না সারাদিন গেমস আর গেমস। শেষে বাত দিলাম আর তখন ভাবলাম যে অনেক সময় নষ্ট করেছি।  সেই সময়টা ভাল কাজে লাগালে হয়তো আজ অনেক দূর এগিয়ে যেতে পারতাম। আর আজ এখন আবার ভাবছি এখনকার মত যদি তখন বুঝতাম যে সময়কে ভাল কাজে লাগালে তার ফল এক সময় পাওয়া যায় তাহলে আজ অন্তত এখন যেমন আছি তার থেকে একটু হলেও ভাল থাকতাম।


তাই গেমস খেলুন অল্প খেলুন নেশায় পরিনত করবেন না। মনে রাখবেন কোন কিছুই অতিরিক্ত ভাল না। গেমস খেলছেন খেলেন এত সমালোচনার দরকার কি হুদাই?  পাবজি বা ফ্রি ফায়ার কম্পানিতো আর আমাকে জব দিচ্ছে না। আজব আমরা ভাবুন হাসি পাবে আপনার। যা দিয়ে সারাজীবন কাজে আসবে তা নিয়ে আমরা না ভেবে গেমস নিয়ে ভাবি।

কিছু কথাঃ আপনার হয়তো তেমন নেশা নেই পাবজি বা ফ্রি ফায়ার এর। কিন্তু অনেকে সারাদিন শুধু গেমই খেলে এবং দিন দিন তাদের কাছে এই গেমসই সোনার হরিন মনে হচ্ছে। এমনকি তারা নিয়মিত গেমসে টাকাও ইনভেস্ট করছে।  তাদের উদ্দেশ্যে বললাম কথা গুলো। কষ্ট করে পড়ার জন্য ধন্যবাদ সবাইকে।

Post a Comment

0 Comments